[View Page in English]

ঘড়িঃ অনলাইনে মেয়েদের ঘড়ি কিনুন বাংলাদেশে - সেরা দাম

দারাজ বাংলাদেশ থেকে জনপ্রিয় ও বিশ্বসেরা ব্র্যান্ডের দারুন সব মডেলের মেয়েদের ঘড়ি (Women’s Watch) অনলাইনে কিনুন এখন সহজেই। দারাজ অনলাইন ঘড়ির বাজার থেকে লেডিস হাত ঘড়ি এর শপিং সারুন সুলভ মূল্যে। মেয়েদের হাত ঘড়ির মডেল ও মেয়েদের হাত ঘড়ির পিক ও ডিজাইন (মেয়েদের হাতের ঘড়ির ডিজাইন) দেখে সব ধরণের লেডিস ঘড়ি (২০২১) দারাজ থেকে সংগ্রহ করতে পারেন খুব সহজেই। মেয়েদের ঘড়ি ডিজাইন বা মেয়েদের ঘড়ির ডিজাইন ও দাম ছাড়াও মেয়েদের হাত ঘড়ি ছবি দেখে লেডিস রিস্ট ওয়াচ পছন্দ করার সুযোগ থাকছে দারাজে। বাংলাদেশে অনলাইন শপিং এখন অনেক বেশী প্রাণবন্ত ও সাবলীল। মেয়েদের ছাড়াও দারাজে পাবেন সাশ্রয়ী ছেলেদের ঘড়ির দাম

মেয়েদের ঘড়ি হতে পারে প্রয়োজনের সাথে ফ্যাশনের অপূর্ব সম্মিলন

বর্তমান যুগে ঘড়ি শুধুই একটা সময় দেখার যন্ত্র নয়। এখন শুধু সময় দেখার জন্য কেউই ঘড়ি কিনে না। তবে যে কারণেই ঘড়ি কিনুন না কেন, বর্তমানে ঘড়ি হচ্ছে বর্তমান স্টাইল ও স্ট্যাটাস -এর অপূর্ব নিদর্শন। আপনার হাতের একটি মানসম্পন্ন দামি ঘড়ি নিঃসন্দেহে আপনার ব্যাক্তিত্বের প্রকাশ ঘটাতে পারে। সময় বলে দেয়া ছাড়াও ঘড়ি অনেক কিছুই করে থাকে, ঘড়ি এখন একটি শক্তিশালী ফ্যাশন উপকরণও বটে। একজন ঘড়ি ব্যবহারকারী সোনা বা টাইটেনিয়ামের জাকজমকপূর্ণ বিলাসবহুল ঘড়ি পছন্দ করতে পারেন অথবা বিবাহের অতিথিদের উপহার হিসেবে দিতে পারেন একটা পকেট ঘড়ি। দারাজে আছে সকল বয়সী নারীদের জন্য বিভিন্ন দামের বৈচিত্র্যময় ঘড়ির বিশাল কালেকশন।

কোয়ার্টজ ঘড়ি বাংলাদেশে
ঘড়ির মুভমেন্টের মধ্যে সবচেয়ে সাধারন বিষয়টি হল কোয়াটজ মুভমেন্ট সঠিকতা ও স্থিতিশীলতা অফার করে। কোয়ার্টজ মুভমেন্ট সঠিক সময় নিশ্চিত করতে প্রতি সেকেন্ডে ৩২,০০০ ভাইব্রেশন দেয়। এতে করে খুব সহজেই এটি বোঝা যায় কেন একটি কোয়ার্টজ ঘড়ি মাসে মাত্র ১০ সেকেন্ড সময় হারায়। আর কোয়ার্টজ ঘড়িতে ওয়েন্ডিংয়ের দরকার নেই। ২ বছরে ১ বার ব্যাটারি পরিবর্তন করলেই চলে। কোয়ার্টজ ঘড়ি হতে পারে বিভিন্ন স্টাইলের, যেমনঃ এনালগ ঘড়ি, ডিজিটাল ঘড়ি।

মেয়েদের জন্য স্টাইলিশ ঘড়ি - সেরা ডিজাইন
মেয়েদের হাত ঘড়ির ব্যাপারটি এখন আর সময় দেখার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। ঘড়ির টাইম ঠিক থাক আর না থাক, স্টাইলিশ ফ্যাশনের জন্য হাতে ঘড়ি থাকা চাই-ই-চাই। বড় ডায়ালের হাতঘড়ি বেশির ভাগ মেয়েদের পছন্দের শীর্ষে থাকে। ফ্যাশন আর প্রয়োজন- দুই মিলিয়ে মানানসই হাতঘড়ির দিকেই বেশি আগ্রহ থাকে এখনকার তরুণীদের। মোটা চেইন আর বড় ডায়াল, এমন ঘড়িই বর্তমানে তরুণীরা পছন্দ করে থাকেন, তবে টিনএজাররা স্পোর্টস ঘড়ি পরতেই অনেকাংশে সাচ্ছন্দ বোধ করেন। মেয়েদের ক্যাজুয়াল লুকের ক্ষেত্রে তাই স্বর্ণ অথবা মেটাল চেইন আর বড় ডায়ালের ঘড়িই এখন বহুল জনপ্রিয়। আর ফরমাল লুকের ক্ষেত্রে ছোট ডায়ালের চামড়া বা চেইনওয়ালা ঘড়িই বেশি মানানসই।

মেয়েদের এনালগ ঘড়ি অনলাইনে
মেয়েদের জন্য অ্যানালগ ঘড়ি এখন বর্তমান সময়ের ট্রেন্ড অনুযায়ী ক্রেতাদের চাহিদার শীর্ষে রয়েছে। ডিজাইন ও আকৃতির মেলবন্ধনে ঘড়ি ব্যবহারকারীদের অন্যতম পছন্দের তালিকায় আছে মেয়েদের অ্যানালগ ঘড়ি। এনালগ মুভমেন্ট আর স্টাইলিশ ডিজাইন আকৃষ্ট করে করতে পারে যে কাউকে।

মেয়েদের জন্য সেরা ক্রোনোগ্রাফ ঘড়ি
একজন অ্যাথলেট এমন ক্রোনোগ্রাফ ঘড়ি পছন্দ করবেন, যা কিনা স্টপ ওয়াচের কাজ করবে। ক্রোনোগ্রাফ ঘড়ি গুলো সাধারণত স্প্লিট সেকেন্ড ফরম্যাটে হয়ে থাকে। কোন কোনটি আবার দুই ধরনের টাইম ফরম্যাট একই সাথে দেখিয়ে থাকে। দৌড়বিদ ও সাতারুদের জন্য যা কিনা অসাধারণ একটি ব্যাপার। এর বাইরে কিছু ঘড়ি ট্যাকিমিটারও অফার করে থাকে। ট্যাকিমিটার সময় ও দূরত্ব হিসাব করে গতি বের করতে সাহায্য করে।

মেয়েদের জন্য উন্নত ডিজিটাল ঘড়ি
ডিজিটাল ঘড়ি গুলোর আছে ডিজিটাল ডিসপ্লে -এর মাধ্যমে সময়, ক্যালেন্ডার, অ্যালার্ম, স্টপ ওয়াচ সহ আরও অনেক ফাংশন। ডিজিটাল ঘড়ি -তে এনালগ ঘড়ির থেকে অনেক বেশি ফিচার থাকে। ডিজিটাল ঘড়িতে ডিজিটাল ডিসপ্লে -এর মাধ্যমে সকল তথ্য দেখানো হয়। ডিজিটাল ঘড়ির সবচাইতে আধুনিক আবিষ্কার হচ্ছে ফ্যাশনেবল স্মার্টওয়াচ, যা আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে করেছে অনেক বেশি গতিশীল ও বৈচিত্র্যময়। স্মার্ট ওয়াচের আছে মোবাইল ফোন -এর সাথে সরাসরি সিঙ্ক করার অপশন, যা হাত ঘড়ির দুনিয়ায় এনেছে নতুন দিগন্ত।

মেয়েদের ফ্যাশনেবল ঘড়ি - সেরা কালেকশন

সময় দেখতে বলুন আর নিজেকে সাজাতে বলুন, বর্তমানে লেদার ঘড়ি ব্যবহার করছেন অনেকেই। স্কুল-কলেজ থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় এবং কর্পোরেট হাউজে যারা কাজ করছেন, তারাও তাদের হাতে রাখছেন ফ্যাশনেবল গোল্ডেন কালার ঘড়ি (সোনালি কালার ঘড়ি)। নানা রঙের ঘড়ি যেমন পোশাকের সাথে মানিয়ে পরা যায়, তেমনি আবার তা ব্যাগ বা জুতার সাথে মিলিয়েও অনেকে পরে থাকেন। নানা ব্র্যান্ডের ঘড়ির পাশাপাশি ঘড়ির ব্র্যান্ড ছাড়াও ঘড়ির ধরন, রঙ (ঘড়ি পিকচার) আর ডায়ালের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে নারীরা ঘড়ি কিনছেন। শাড়ির সাথে যেমন এই ঘড়ি মানিয়ে যায়, তেমনি সালোয়ার-কামিজ এবং ওয়েস্টার্ন পোশাকেও মানায়। ফ্যাশনেবল ঘড়ি আপনার হাতের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে পারে বেশ কয়েকগুণ।

পরিবর্তন এসেছে মেয়েদের ঘড়ি আর ফ্যাশনে

একটা সময় মেয়েদের ঘড়ি বলতে শুধু চিকন বেল্ট আর গোল ডায়েলের ঘড়িকেই বুঝানো হতো। কিন্তু সময়ের সাথে সাথে পছন্দের দিকে যেমন পরিবর্তন এসেছে, তেমনি ফ্যাশনেও এসেছে পরিবর্তন। এখন বেল্টের পাশাপাশি মোটা স্টেইনলেস স্টিল ঘড়ি মেয়েরা অনায়াসেই পরে থাকেন। আর রঙের ক্ষেত্রে মেটালিক রঙের প্রাধান্য কিছুটা বেশি। পাশাপাশি আরো আছে কালো, খয়েরি, লাল আর সিলভার রঙ। ডান হাত হোক কিংবা বাম হাত, মেয়েরা বেশ সাচ্ছন্দেই পরিধান করেন এসব স্টাইলিশ ঘড়ি।

বর্তমানে মেয়েদের বেল্টের ঘড়ি বেশ জনপ্রিয়

বর্তমানে লম্বা পোশাকের চল বেশি যার মধ্যে লম্বা সালোয়ার কামিজ অন্যতম। এর সাথে খুব সহজেই মানিয়ে যায় সরু বেল্টের ঘড়ি। তবে যাদের হাত কিছুটা সরু কিংবা শুকনা তাদের হাতে আবার মেটালের মোটা ঘড়ি দারুণ মানায়। শাড়ির সাথে অনায়াসেই মানাবে মোটা বেল্ট। এক্ষেত্রে চিকন বেল্ট একদমই এড়িয়ে চলা শ্রেয়।

দারাজের বিশ্বসেরা ঘড়ি ব্র্যান্ডসমূহ
ফাসট্র্যাক ঘড়ি | ফসিল ঘড়ি | কারেন ঘড়ি | নেভিফোর্স ঘড়ি

মেয়েদের ঘড়ির দাম - বিশাল ডিসকাউন্ট দারাজে

বাংলাদেশে সবসময়ের জন্য মেয়েদের ঘড়ি অনলাইনে শপিং এর সেরা অনলাইন মার্কেটপ্লেস হল দারাজ বাংলাদেশ (Daraz.com.bd)। দারাজ অনলাইন ঘড়ি স্টোরে মেয়েদের ঘড়ির দাম বা মেয়েদের হাত ঘড়ির দাম রাখা হয়েছে ক্রেতাদের হাতের নাগালেই। এছাড়াও এখন মেয়েদের টাইটান ঘড়ির দাম দারাজে পাওয়া যাবে আপনার সাধ্যের মধ্যেই। তাই যেকোন ধরণের মেয়েদের হাত ঘড়ি এর দাম দারাজে উপভোগ করুন একেবারে সুলভ মূল্য পরিসরেই। আপনার কাঙ্ক্ষিত মেয়েদের ঘড়ি টি পেতে ব্রাউজ করুন দারাজের মেয়েদের ঘড়ি ক্যাটেগরিতে, অনলাইনে অর্ডার করুন এবং নতুন লেডিস হাত ঘড়ি আপনার দরজায় আসার জন্য অপেক্ষা করুন। উপভোগ করুন সেরা অনলাইন শপিং-এর দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা ঘরে বসেই। এছাড়া দারাজে ভিজিট করে আরো জানতে পারবেন কেস জুতা ২০২০ সাল অনুযায়ী মূল্যতালিকা।

আরও চেক করতে পারেন,

বাংলাদেশে উন্নত কোয়ালিটি সম্পন্ন হাত ঘড়ির দাম কত? দারাজে রয়েছে সকল ব্র্যান্ডের সেরা মানের ঘড়ির আপডেটেড দাম ও কালেকশন। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক বাংলাদেশে সবচেয়ে কম দামে হাত ঘড়ির মডেলের মূল্যতালিকা-
ঘড়ির মডেল দাম (বাংলাদেশ)
লুইসউইল ওমেন ব্রেসলেট ঘড়ি ৩৪৯ টাকা
এসকেএমইআই লেদার ওয়াটারপ্রুফ ইলেকট্রনিক হাতঘড়ি ৪৮০ টাকা
নেভিফোর্স স্পোর্ট রিস্টওয়াচ ৬১৭ টাকা
কারেন ৯০১৫ ওমেন'স ওয়াচ ১,১৬৬ টাকা
ওলেভস ৬৮৯৮ লেদার ওয়াচ ১,৩৩০ টাকা
নেভিফোর্স এনএফ৫০০৮ রোজগোল্ড ওয়াচ ১,৫৫০ টাকা